আবার চমক রাজ্য রাজনীতিতে, বিধায়ক অর্জুন সিং বিজেপিতে

মর্নিং ভিউ(সুশর্মা সরকার):– চমকের পর চমক !বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে দিল্লীতে দফায় দফায় বৈঠক হয় এবং শিরোনামে উঠে আসে আরও এক চমক ! তৃণমূল নেত্রী তাঁর কথা না রাখায় তাই শেষ পর্যন্ত বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের নেতৃত্বেই বিজেপিতে যোগ দেন ভাটপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিং | মুকুল রায় এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের উপস্থিতিতে এক সাংবাদিক বৈঠকে একথা প্রকাশ করেন বিধায়ক অর্জুন সিংহ | তাঁর ইচ্ছা ছিল আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বারাকপুর থেকে প্রার্থী হওয়ার | ইচ্ছা প্রকাশ করায় নবান্নে গিয়ে মমতার সাথে আলোচনা পর্বও শেষ করেন এই নেতা | মমতা তাঁকে আশাবাদীও করে রেখেছিলেন ঐদিন এবং উক্ত আসনে ভোট প্রচার করার নির্দেশও দেন | আশ্বাস পেয়ে অর্জুন সিং সেইমত চুপচাপ ছিলেন | কিন্তু এইদিন তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হওয়ায় তিনি বাদ পড়ায় ক্ষুব্ধ হন| তাই তিনি বিজেপির শীর্ষনেতাদের সাথে যোগাযোগ করেই মুকুল রায় এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেন অর্জুন সিং দিল্লীর বিজেপির দফতরে | যদিও গতকালই কালীঘাটের বাড়ীতে বৈঠকে বসেছিলেন মমতা দলীয় সাংসদদের সাথে | বৈঠকে মমতা বলেন,”দু’এক জনের প্রার্থী হওয়ার লোভ আছে,যারা যেতে চায় তারা গেলে তো বেঁচে যাই | কে গেল,ওরা কাকে নিল তাতে আমার কিছু আসে যায় না ,আমি অনেককে বলে দিয়েছি—“যা মুক্ত করে দিচ্ছি, টাকা নিয়ে যারা দল ভাঙায় তাদের নিন্দা করি “|
যদিও তৃণমূলে থাকাকালীন মুকুল রায়ের সাথে অর্জুন সিংয়ের একসময় সম্পর্ক ছিল দূর্বল সেতুর মতোই,যা তখন দলের মধ্যে দুঃখজনক ঘটনা ছিল, এদিন সেই মুকুল রায়ের হাত ধরেই বিজেপিতে এসে দুজনের সম্পর্কের সেতুবন্ধণটা আরও দৃঢ় করে নিল | সূত্রের খবর, কেবলমাত্র বারাকপুর থেকে প্রার্থী হিসেবেই নয়,আরও বড় মাপের দায়িত্ব নিতে চান অর্জুন সিং | তাঁর কথায়,”যখন মোদীজীর নেতৃত্বে সেনাবাহিনী জঙ্গিদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেন,তখন মমতার কিছু মন্তব্য দুঃখজনক | 30 বছর ধরে মমতার সাথে কাজ করেছি ,কিন্তু পুলওয়ামার ঘটনার পর যে ধরনের মন্তব্য মমতা করেছেন তা মেনে নেয়া সম্ভব হল না “|
এদিকে দলত্যাগের কথা শুনে বারাকপুরের প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদী বলেন,”কে এলো,কে গেলো তা নিয়ে আমরা ভাবিত নই,মমতা ব্যানার্জ্জী আমাকে যে দায়ীত্ব দিয়েছেন তা আমি পালন করব | কয়েকজনের দলত্যাগ নিয়ে টিএমসি বা রাজ্যবাসী ভাবিত নয় “|
এদিন মুকুল রায় মমতাকে কটাক্ষ করে বলেন যে,”এটা তো ট্রেলার চলছে, আসল সিনেমা এখনও বাকী “|
অধীর রঞ্জন চৌধুরীও মমতাকে উদ্দেশ্য করে বলেন যে,” যে রাজনৈতিক নোংরা খেলায় দিদি কংগ্রেস দল ভাঙলো,সেই একই খেলায় দিদির দল ভাঙছে বিজেপি | আমি অনেক আগেই বলেছিলাম যে,দিদিকেও একদিন একই খেলার শিকার হতে হবে “| তিনি আরও বার্তা দেন যে,”দিদি, আপনার রাজনৈতিক পাপ আপনাকে ছাড়বে না “|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *