আশার জাল বুনে চলা জীবন সংগ্রামের এক আলোকবর্তিকার নাম অনিতা সরকার।

মর্নিং ভিউ রিপোর্ট : হেলেঞ্চা, আশার জাল বুনে চলা জীবন সংগ্রামের এক আলোকবর্তিকার নাম অনিতা সরকার। হেলেঞ্চা থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে বানেশ্বরপুর গ্রামে এই অনিতা দেবীর বাড়ি। বাচ্চাকাচ্চাদের লেখাপড়া শিখিয়ে মানুষের মত মানুষ করার পাশাপাশি সংসারের আর্থিক সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে নিজের হাতে তুলে নিয়েছেন কর্মের হাতিয়ার। চ্যালেঞ্জিং এক পেশা তাকে দেখিয়েছে নুতন দিশা। ইঞ্জিন চালিত ভ্যানে মাইক বক্স লাগিয়ে হেলেঞ্চার মহল্লায় মহল্লায় ফেরি করে বিভিন্ন প্রকার মাছ ও ব্রয়লার মুরগির মাংস বিক্রেতা বলতে নাম বলতেই যে নামটা সবার মুখে মুখে ফেরে সে আর কেউ নন, তিনি বানেশ্বরপুরের অনিতা সরকার। সদা হাস্য উজ্জ্বল মুখ, আর সুমিষ্ট ব্যবহারে জায়গা করে নিয়েছেন খরিদ্দারদের মনের মনি কোঠায়। বিশেষ করে হেলেঞ্চার মহিলা খরিদ্দারদের প্রিয় দোকানী আজ তাদের অনিতা দি।

কষ্টকে জয় করা অনিতা দেবীর কথায়, “উপার্জনের মুখ আমি দেখেছি, তাই কষ্টের রূপ দেখতে চাই না আর”। নিজের কষ্টার্জিত অর্থে পাকা বাড়ির কাজ শুরু করেছেন তিনি। খুব শীঘ্রই স্বপ্ন দিয়ে সাজানো এক খানা পাকা বাড়ির গর্বিত মালকিন হবেন তিনি। সন্তান সন্তুতি নিয়ে এক সৌভাগ্যের মিনার প্রতিষ্ঠা করবেন এখানে। নিরাশা নিহত হবে, দুঃখ কষ্টের সকল পঙ্কিলতাকে ধুয়ে মুছে সাফ করে দিয়ে হাসির লহরী ছুঁটাবেন প্রদীপের শিখার মত মিট মিট করে জ্বলা এই অনাহত সংসারে। পরম আহ্লাদে বাড়ির আঙিনায় গজিয়ে ওঠা সবুজ ঘাসের উপর খালিপায়ে হাঁটতে হাঁটতে নরম ঘাসের অজানা শিহরনে ভূলার চেষ্টা করবেন বিগত দিনের কষ্টের মধ্যে অতিবাহিত হওয়া দিন গুলির কথা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *