পিকনিকে অপ্রত্যাশিত ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডা জেরে আহত চার ছাত্র

মর্নিং ভিউ রিপোর্ট : বাগদা, সিন্দ্রানী গ্রাম পঞ্চায়েতের বাজিতপুরে ছাত্রদের এক পিকনিকে অপ্রত্যাশিত কয়েক ব্যাক্তি ঢুকে খাবারে ভাগ বসানোর চেষ্টা করাকালীন দু’পক্ষের বাকবিতন্ডা কে কেন্দ্র করে সৌমেন বাছাড়, মৃন্ময় কাঞ্জিলাল, অভিষেক সরকার ও বিপিন বিশ্বাস নামে ৪ বন্ধু সিন্দ্রানী থেকে বাজিতপুর যাওয়ার পথে মাঝ পথে রাত ৯টার সময় স্থানীয় খোকন মজুমদারের নেতৃত্বে হরিমন বাগচী, নয়ন বিশ্বাস, নিধির বিশ্বাস, তুষার রায়, রিপন মজুমদার, মিলন বাইন, খোকন মজুমদার ও হিরামন বাগচী ভোজালি, রামদা ও বাঁশের লাঠি দিয়ে অতর্কিতে আক্রমণ করে মারাত্মক ভাবে আহত করে এবং বিপিন বিশ্বাসকে এলোপাথাড়ি ভোজালি দিয়ে আঘাত করে বলে জানা গেছে।

আশংকাজনক ভাবে আহত উক্ত ৪ বন্ধুকে প্রথমে বাগদা গ্রামীন হাসপাতালে পরে অভিষেক সরকারের শারিরীক অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঘটনাটি ঘটে গত ২রা নভেম্বর রাতে। এ মর্মে আহত সৌমেন বাছাড় বাদী হয়ে বাগদা থানায় একটা এফআইআর দায়ের করে। যার নং ৬০২\১৯ । অভিযোগকারী তার লিখিত বয়ানে থানাকে জানিয়েছে উক্ত ৮ জন অভিযুক্ত এলাকায় চোলাই মদ ও গ্যাজার ঠেক চালাই।

অভিযোগ করার পর এতটা সময় অতিবাহিত হয়ে গেলেও পুলিশ কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি সেকারনে গত ৩রা নভেম্বর সিন্দ্রানী এলাকার বাসিন্দারা দলমত নির্বিশেষে নারী পুরুষ মিলে শতাধিক গ্রামবাসী সিন্দ্রানী বাজার তে-মাথায় প্রায় ঘন্টা দেড়েক পথ অবরোধ করে আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদানের দাবিতে বিক্ষোভ দেখান। পরে বাগদা থানার পুলিশের আশ্বাসে অবরোধ ওঠে।

সৌমেন বাছাড় বলেন, আহত ৪ বন্ধুই ছাত্র দু,জন নাবালকও রয়েছে। যারা তাদেরকে মারধর করেছে যথেষ্ট প্রভাবশালী, অল্প দিন ওপার বাংলা থেকে এদেশে আসলেও এক বিশেষ রাজনৈতিক দলের ছত্রছায়ায় থেকে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অবৈধ কর্মকান্ড পরিচালনা করে এলাকার ডনে পরিনত হয়েছে। এই ঘটনার পরেও আহতরা ভয়ে ভয়ে দিনাতিপাত করছে।

যে কোন মুহূর্তে তাদের উপর নাকি আরও বড় ধরনের হামলা হতে পারে। আহত ৪ ছাত্রের আশংকা এমনটাই। সিন্দ্রানীর বিশিষ্ট সমাজ সেবক বিনয় বিশ্বাস ওরফে বাপি ও কৃষ্ণ বিশ্বাস বলেন, ছোটো ছোটো স্কুল ছাত্রদের উপর এমন নির্মম অত্যাচার সিন্দ্রানীতে এই প্রথম। এমন দুঃখজনক ও নিন্দনীয় ঘটনার দোষী ব্যক্তিদের কঠোরতম শাস্তির দাবি করছি।

তিনি আরও বলেন, পুলিশ যদি দুষ্কৃতিদের গ্রেফতার করে যথাযথ ব্যাবস্থা না গ্রহন করে তাহলে আমরা উর্দ্ধতন কতৃপক্ষ কে জানাবো এবং বৃহত্তর আন্দোলনে যেতে বাধ্য থাকবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *